স্থানীয় খবর

জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে সেরা বগুড়া

Spread the love

ষ্টাফ রির্পোটার: এসএসসিতে জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে বগুড়া এবছরেও রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে সেরা হয়েছে। গতবছরের তুলনায় এবার বগুড়ায় জিপিএ-৫ প্রাপ্তি এবং পাশের হারও বেড়েছে। বোর্ড অনুযায়ী বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, ছেলেদের থেকে মেয়েরা আবারো এগিয়ে আছে। বগুড়ার স্কুলগুলোর মধ্যে জিলা স্কুলই আবারও নিজেদের সেরা প্রমাণ করেছে। অল্পের জন্য ঐ স্কুল এবার শতভাগ জিপিএ-৫ প্রাপ্তির রেকর্ড করতে পারেনি।
রাজশাহী বোর্ডের ঘোষিত ফলাফলে এবার দেখা গেছে ২০২০ সালে এসএসসি পরীক্ষায় বগুড়ার থেকে মোট ৩৫ হাজার ৩৯৫জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে। তাদের মধ্যে ১৮ হাজার ৭০৬জন ছেলে এবং ১৬ হাজার ৬৮৯জন মেয়ে পরীক্ষার্থী। পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ৯২.২৭ শতাংশ উত্তীর্ণ হয়। ২০১৯ সালে পাশের হার ছিল ৯২.১৪ শতাংশ উত্তীর্ণ হয়।
রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির ক্ষেত্রে এবারও প্রথম স্থান ধরে রেখেছে বগুড়া জেলার শিক্ষার্থীরা। বগুড়া জেলা থেকে সর্বোচ্চ ৬ হাজার ৪৩৪জন জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। যা ২০১৯ সালে ছিলো ৫ হাজার ১৮৬জন। বোর্ডের তথ্য অনুযায়ী ২০১৬ সাল থেকেই রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে বগুড়া বরাবার শীর্ষস্থান করে আসছে।
সরকারি- বেসরকারি প্রথম সারির ৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে জেলায় শতভাগ পাশ এবং পরীক্ষার্থী অনুপাতে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির ক্ষেত্রে বগুড়ার প্রাচীনতম জিলা স্কুল শীর্ষ স্থান দখল করেছে। ঐ প্রতিষ্ঠান থেকে এবার ২১৮জন পরীক্ষা দিয়েছিলো যার মধ্যে মাত্র একজন ছাড়া সবাই জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে।
জিপিএ-৫ প্রাপ্তির ক্ষেত্রে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ। ঐ প্রতিষ্ঠান থেকে এবার ২৫৫জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৪৭জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। এর পরের স্থানে রয়েছে বগুড়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় (ভিএম)। প্রতিষ্ঠানটি থেকে পরীক্ষায় অংশ নেওয়া ২৫৩জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৩৮জন জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে।
শতভাগ পাশসহ পরীক্ষার্থী অনুপাতে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির ক্ষেত্রে পর্যায়ক্রমে অন্য যেসব প্রতিষ্ঠান রয়েছে সেগুলো হলো: আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন স্কুল ও কলেজ (৩১১জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৮৪জন জিপিএ-৫ পেয়েছে), করতোয়া মাল্টিমিডিয়া স্কুল ও কলেজ (১৬৯জন পরীক্ষার মধ্যে ১৩৫জন জিপিএ-৫ পেয়েছে), পুলিশ লাইন্স স্কুল ও কলেজ (২১৩জন পরীক্ষার মধ্যে ১৮৪জন জিপিএ-৫ পেয়েছে)।
শহরের অপর দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিয়াম মডেল স্কুল ও কলেজ এবং এসওএস হারম্যান মেইনর স্কুল ও কলেজ এবার গতবছরের মত শতভাগ পাশের রেকর্ড ছুঁতে পারেনি।
বিয়াম মডেল স্কুল ও কলেজ থেকে এবার পরীক্ষায় অংশ নেয় ৪২৭জন পরীক্ষার্থী তাদের মধ্যে একজন অনুপস্থিত থাকায় শতভাগ পাশের রেকর্ড করতে পারেনি। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৬৯জন। অপরদিকে এসওএস হারম্যান মেইনর স্কুল ও কলেজ থেকে ৫৫জন পরীক্ষা দিলেও পাশ করেছে ৫৪ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৭জন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close