স্থানীয় খবর

শেরপুরে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ

Spread the love

ষ্টাফ রির্পোটার: বগুড়ার শেরপুরে করোনা মোকাবেলায় সরকার কর্তৃক ব্যাংক থেকে ১ লাখ টাকা করে লোন দেয়ার নাম করে অসহায়, দরিদ্র ও খেটে খাওয়া প্রায় ৪০ জনের কাছ থেকে ৫ হাজার করে টাকা উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে ১ নং মডেল গাড়িদহ ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য প্রভাবশালী বিএনপি নেতা আসাদুল ইসলামের বিরুদ্ধে।
ওই ইউনিয়নের মহিপুর মুন্সিপাড়া(পিসি ভাটা) গ্রামের মৃত গোলা সরকারের ছেলে মতিবর সরকার, মৃত কলিম মন্ডলের ছেলে সুরুজ মন্ডল ও আব্দুল গণির ছেলে কালাম শেখ জানান, আসাদুল মেম্বার আমাদের কে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক থেকে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকার কর্তৃক লোন পাইয়ে দেয়ার কথা বলে প্রায় দুই মাস আগে ৫ হাজার করে টাকা নেয়। কিন্তু আজ অবদি সেই টাকা না পাওয়ায় তাকে আমাদের ৫ হাজার টাকা ফেরত দিতে বললে সে তালবাহানা শুরু করে এবং নানা ধরনের হুমকি দিয়ে আসছে।
খোজ নিয়ে জানা যায়, শুধু তাদের কাছ থেকে নয়। ওই ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের প্রায় ৪০ জনের কাছ থেকে ৫ হাজার করে টাকা নিয়েছে সে। এছাড়াও বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধি ও বিশেষ ভাতার কার্ড করে দেয়ার নামেও অর্থ বানিজ্য করার অভিযোগ থাকলেও প্রভাবশালী হওয়ায় উর্ধতন কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে এখনো কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেননি।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য আসাদুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে (০১৭১৮ ১২৩২০৪) যোগাযোগ করলে সে নানা ধরনের তালবাহানা করে ফোন কেটে দিয়েছে। এ ব্যাপারে গাড়িদহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দবির উদ্দিন বলেন, ব্যাংক থেকে লোন দেয়ার কথা বলে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে বলে আমি শুনেছি। কিন্তু লিখিত কোন অভিযোগ পাইনি বলে ব্যাবস্থা গ্রহন করতে পারছিনা।
উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মো. লিয়াকত আলী সেখ বলেন, এ ব্যাপারে এখনো আমার কাছে কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close