স্থানীয় খবর

শেরপুরে শেখ রাসেলের জন্মদিনে ইফা’র কোন কর্মসুচি ছিলনা!

Spread the love

ষ্টাফ রির্পোটার: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র ও শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন ছিল ১৮ অক্টোবর শুক্রবার। ১৯৬৪ সালের এই দিনে ঐতিহাসিক স্মৃতি-বিজড়িত ধানমন্ডিস্থ ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু ভবনে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ৭৫’এর ১৫ আগস্ট মানবতার শত্রæ ঘৃণ্য ঘাতকদের নির্মম বুলেটের হাত থেকে রা পাননি রাসেল। বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে নরপিশাচরা নিষ্ঠুরভাবে তাঁকেও হত্যা করে। মৃত্যুকালে রাসেল ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র ছিলেন। খুনিরা তাকে হত্যা করে বঙ্গবন্ধুর রক্তের উত্তরাধিকার নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল।
শেখ রাসেল আজ বাংলাদেশের শিশু-কিশোর, তরুণ, শুভবুদ্ধিবোধ সম্পন্ন মানুষদের কাছে ভালবাসার নাম। অবহেলিত, পশ্চাৎপদ, অধিকার বঞ্চিত শিশুদের আলোকিত জীবন গড়ার প্রতীক হয়ে গ্রামগঞ্জ-শহর তথা বাংলাদেশের বিস্তীর্ণ জনপদ-লোকালয়ে এক মানবিক সত্ত¡ায় পরিণত হয়েছে। দিবসটি উপলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ শুক্রবার ফাতেহা পাঠ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে।
প্রতিবছর শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে শেরপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে হামদ-নাত প্রতিযোগিতা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা ও দোওয়া মাহফিল সহ বিভিন্ন কর্মসুচি পালন করা হয়েছে। কিন্তু এ বছর শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে শেরপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কোন প্রকার কর্মসুচি পালন করার খবর পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের শেরপুর এলাকার ফিল্ড সুপারভাইজার শফিক মাহমুদের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন এ বছর শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে সরকারী কোন চিঠি পাননি,তাই কোন কর্মসুচি গ্রহন করা হয়নি। এ ব্যাপারে তিনি ইসলামিক ফাউন্ডেশন বগুড়ার উপ পরিচালকের সাথে কথা বলার পরামর্শ দেন। ফিল্ড সুপারভাইজার শফিক মাহমুদ শেরপুরে যোগদান করার পর থেকে বিভিন্ন সরকারী কর্মসুচি দায়সারা ভাবে পালন করে থাকেন। কোন কোন অনুষ্ঠান শুধু ফটোসেশনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে বলে তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ রয়েছে। ফিল্ড সুপারভাইজার হলেও তিনি ফিল্ডে না গিয়ে অফিসে বসেই ফিল্ডের কাজ করেন বলে তার দপ্তরের কেউ কেউ জানান। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: লিয়াকত আলী সেখের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি খোঁজ খবর নিয়ে বলেন শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে এবার শেরপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কোন কর্মসুচি নেই।
দিবসটি পালন উপল্েয শুক্রবার বাদজুম্মা শেরপুর কেন্দ্রীয় শাহী জামে মসজিদে আওয়ামী লীগের মিলাদ মাহফিল,দোওয়া ও বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করা হয়। মিলাদ মাহফিল, দোওয়া ও বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন শেরপুর কেন্দ্রীয় শাহী জামে মসজিদের খতিব মাও: মো: আমানউল্লাহ হাসান সালেহী। এ সময় শেরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুস সাত্তার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব শাহজামাল সিরাজী,আওয়ামী লীগ নেতা জহুরুল ইসলাম, হাবিবর রহমান হাবিব ,শ্রমিক লীগ নেতা কামাল হোসেন সহ মুসুল্লীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। মোনাজাত শেষে মিষ্টান্ন বিতরন করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close