বিদেশের খবর

স্বাধীন জিম্বাবুয়ের স্থপতি মুগাবে আর নেই

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: জিম্বাবুয়ের স্বাধীনতার প্রবাদপুরুষ ও একটানা তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে দেশটির মতায় থাকা রবার্ট মুগাবে মৃত্যুবরণ করেছেন। সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকালে মৃত্যু হয় ৯৫ বছর বয়সী এই আফ্রিকান নেতার। মুগাবে ছিলেন জিম্বাবুয়ের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্ট।
বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুগাবের পরিবারের সদস্যরা জানান গত এপ্রিল থেকে সিঙ্গাপুরের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। জিম্বাবুয়ের স্বাধীনতার পর অনুষ্ঠিত প্রথম নির্বাচনে ১৯৮০ সালে জয়লাভ করে প্রধানমন্ত্রী হন মুগাবে। ১৯৮৭ সালে প্রধানমন্ত্রীর দফতর বিলুপ্ত ঘোষণা করে প্রেসিডেন্ট হন। তিন দশক প্রেসিডেন্ট হিসেবে মতায় থাকার পর ২০১৭ সালের নভেম্বরে সেনা অভ্যুত্থানের মুখে মতাচ্যুত হন তিনি।

মুগাবের মৃত্যুর খবর জানিয়ে তার উত্তরসূরি এমারসন এমনানগাগোয়া এক টুইটে লেখেন, ‘গভীর শোকের সঙ্গে জিম্বাবুয়ের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবের মৃত্যু সংবাদ আমাকে জানাতে হচ্ছে।’ জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট এমনানগাগোয়ার ভাষায়, ‘মুগাবে ছিলেন আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রতীক, প্যান-আফ্রিকা মতবাদের একজন সমর্থক, যিনি তার জীবন উৎসর্গ করেছিলেন জনগণের মুক্তি আর মতায়নের জন্য।’ মুগাবের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ ও চীন। দীর্ঘদিন জিম্বাবুয়ে শাসন করা ব্রিটেন তাদের শোক বিবৃতিতেও মুগাবের সমালোচনা করেছে। জিম্বাবুয়ের শ্বেতাঙ্গ সংখ্যালঘু শাসনের অবসান ঘটানো মুগাবে তার দেশে অনেকের কাছেই একজন মহানায়ক। কৃষ্ণাঙ্গ জনগোষ্ঠীর জন্য শিা ও চিকিৎসা সেবার সুযোগ বাড়িয়ে শুরুর দিকে তিনি পুরো বিশ্বেই প্রশংসা পেয়েছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close