খেলাধুলা

বাংলাদেশের হয়ে ‘খেলতে চান’ জাপানি তরুণী

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: জাপানি মেয়ে মাতসুশিমা সুমাইয়া স্বপ্ন দেখছেন বাংলাদেশের হয়ে ফুটবল খেলার। মাতসুশিমার জন্ম জাপানে। সেখানেই বসবাস করছেন। তার মা জাপানি হলেও বাবা বাংলাদেশি। সেই অর্থে বাংলাদেশকেও হৃদয়ে লালন করেন তিনি। বাবার দেয়া নাম সুমাইয়ার আগে তিনি ব্যবহার করছেন মায়ের উপাধি ‘মাতসুশিমা’। তার মায়ের নাম মাতসুশিমা তমোমি। বাবার নাম মাসুদুর রহমান। মাতসুশিমা সুমাইয়ার বিষয়ে এসব তথ্য দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।
রোববার বাফুফের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে ২০ বছর বয়সী সুমাইয়াকে নিয়ে বিশদ স্ট্যাটাস দেয়া হয়। সেখানে বলা হয়েছে, লাল-সবুজের জার্সি গায়ে ফুটবল খেলতে চান এই জাপানি তরুণী। যে কারণে বাফুফের কর্মকর্তারা তার দিকে নজর রাখছেন। মাতসুশিমা সুমাইয়ার বিষয়ে বাফুফে থেকে আরও জানানো হয়েছে, সুমাইয়া একজন মিডফিল্ডার। শহরের সি ব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে এ-লেভেলে পড়াশোনা করছেন তিনি। স্কুলের পক্ষ থেকে ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত আন্তঃইংলিশ মিডিয়াম স্কুল টুর্নামেন্টে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সুমাইয়া। সেই টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো তার দল চ্যাম্পিয়ন হয়। প্রতিযোগিতায় সবচেয়ে বেশি গোল করে সেরা খেলোয়াড় হয়েছিলেন তিনি। সেরা ডিফেন্ডারও হয়েছিলেন। বর্তমানে সুমাইয়া দেশটির আইএমসি স্পোর্টিং একাডেমিতে খেলছেন।
গত বছর কোনো এক ম্যাচে লিগামেন্টে আহত হয়েছিলেন সুমাইয়া। চিকিত্সকরা তাকে ফুটবল না খেলার পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু সুমাইয়া ফুটবল খেলা ছাড়েননি। করোনা প্রকোপের মধ্যেও প্রতিদিন ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা অনুশীলন করে যাচ্ছেন। তবু বাফুফে কর্মকর্তারা তার ইনজুরির বিষয়টিতে একটু চিন্তিত। বিষয়টি নিয়ে চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করছেন তারা।
সম্প্রতি বাফুফের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল থমাস স্মল্লি এবং বাংলাদেশের নারী দলের কোচ গোলাম রব্বানী বাফুফে ভবনে সুমাইয়াকে আমন্ত্রণ জানান। অনেক সময় তারা কথা বলেন। তার ফিটনেস পরীক্ষা করা হচ্ছে। চিকিৎসকদের সবুজ সংকেত পেলে জাতীয় দলে দেখা যেতে পারে এই জাপানি তরুণীকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close