বিদেশের খবর

সৌদিতে বিদেশিরা স্থায়ীভাবে থাকতে পারবেন

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: ভিসা নীতিতে যুগান্তকারী পরিবর্তন এনে বিদেশিদের সৌদি আরবে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ দিয়েছে দেশটির সরকার। ইতিমধ্যে ১৯ দেশের ৭৩ জন নাগরিককে ‘প্রিমিয়াম রেসিডেন্সি’ দেওয়া হয়েছে। গত সোমবার দেশটির রাষ্ট্রীয় এক বিবৃতির বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে গালফ নিউজ। দেশটিতে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ পাওয়া ৭৩ জনের মধ্যে ব্যবসায়ী, ইঞ্জিনিয়ার ও চিকিৎসক রয়েছেন।
গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রায় দুই কোটি টাকার মতো বিনিয়োগ করলে যেকোনো দেশের নাগরিককে স্থায়ী বসবাসের অনুমতি পাবেন সৌদিতে। এ ছাড়া বাংলাদেশি মুদ্রায় ২২ লাখ টাকার মতো বিনিয়োগ করলে এক বছরের জন্য বসবাসের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে, যা পরের বছরে নতুন বিনিয়োগের শর্তে নবায়নযোগ্য। তবে যারা সৌদিতে বিনিয়োগ করবেন, তাদের কোনো কফিলের অধীনে থাকতে হবে না। এই ধরনের ভিসা প্রাপ্তারা নিজেদের পরিবার নিয়ে থাকার সুযোগ পাবেন। সৌদি নাগরিকদের জন্য বরাদ্দ কিছু সুবিধাও তারা বিমানবন্দরগুলোতে পাবেন।
২১ বছরের কম বয়সীরা এই ক্যাটাগরিতে আবেদন করতে পারবেন না। আবেদনকারীরা শুধু নিজেদের আর্থিক সমতা প্রমাণাদি দাখিল করার মাধ্যমেই আবেদন করতে পারবেন।
দুভাবে এই বিশেষ নাগরিক সুবিধা অর্জন করা সম্ভব। প্রথমত, স্থায়ী প্রিমিয়াম রেসিডেন্সি, যা এককালীন আট লাখ সৌদি রিয়াল খরচ করে পাওয়া যাবে। এই সুবিধা পাবেন নির্বাচিত কিছু মানুষ। এ ছাড়া অস্থায়ী বার্ষিক ফির ব্যবস্থাও রয়েছে। সেেেত্র এক লাখ সৌদি রিয়াল দিয়ে প্রতি বছর নবায়ন করতে হবে রেসিডেন্সির মেয়াদ।
ওই রেসিডেন্সির মাধ্যমে অনেক সুযোগ-সুবিধা পাবেন বসবাসকারী। সৌদি আরবের সর্বত্র ঘুরে বেড়ানোর সুবিধা ছাড়াও তারা সহজেই ব্যবসার লাইসেন্স, গাড়ি-বাড়ির মালিক হওয়া, মক্কা ও মদীনাতে জমি কেনা ইত্যাদি সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। এ ছাড়া তারা যেকোনো প্রাইভেট চাকরি করতে পারবেন। পাশাপাশি নিজেরাও ব্যবসা করতে পারবেন।
বর্তমানে এই বিশেষ নাগরিকত্বের সুবিধা দেওয়ার জন্য আবেদন বাছাইয়ের সময় মনোযোগ দেওয়া হচ্ছে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, উকিল, ব্যবসায়ী প্রমুখ পেশার মানুষদের, যারা সৌদি আরবের সামগ্রিক উন্নয়নে অনেক অবদান রাখবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close