বিদেশের খবর

ইউনেস্কো সম্মেলনে রোহিঙ্গা ইস্যু: বাংলাদেশ মানবিকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: দশ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ বিশ্ববাসীর কাছে মানবিকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। ইউনেস্কোর ৪০তম জেনারেল কনফারেন্সের দ্বিতীয় দিনের সমাপনী সেশনে রোহিঙ্গা ইস্যুতে এভাবেই বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা করা হয়। এতে বিশ্বের সব শিামন্ত্রী ও ১৯৩ টি দেশ থেকে আসা প্রতিনিধি দলের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় রোহিঙ্গাদের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি গবেষক ম্যাক্স ফ্রেডার এক আবেগঘন ও জ্বালাময়ী বক্তৃতা করেন। বৈঠকে উপস্থিত বাংলাদেশের শিামন্ত্রী ডা. দীপু মনি তখন আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।
বুধবার বাংলাদেশ সময় রাত ২ টায় প্যারিসে ইউনেস্কো সদর দফতরে এই সেশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে শুরুতেই শিা ও মানবিকতা সম্পৃক্ত সঙ্গীত পরিবেশন করেন ইতালির বিশ্বখ্যাত অন্ধশিল্পী বোসিলি। পরে বক্তৃতা করেন যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি গবেষক ম্যাক্স ফ্রেডার।
তিনি বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ মানবিকতার যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে, বিশ্বে তা বিরল। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন ও ভারতের মতো দেশও এই ধরনের দৃষ্টান্ত দেখাতে পারেনি। সম্পদের সীমাবদ্ধতা, অধিক জনসংখ্যা এবং অন্যান্য চ্যালেঞ্জ থাকা সত্বেও বাংলাদেশ মানুষের জীবন রায় নজিরবিহীন ভূমিকা রেখেছে। এেেত্র বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়।
রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানের ল্েয জাতিসংঘ সহ বিশ্বকে কার্যকর পদপে নেয়া জরুরি। মিয়ানমারই রোহিঙ্গাদের নিজের দেশ। সেখানে তাদের নিরাপত্তা ও যথাযথ মর্যাদা সহ নিরাপদ প্রত্যাবাসনের ব্যবস্থা করা প্রয়োজন। প্যানেল আলোচনা শেষে দীপু মনি বাংলাদেশের সাংবাদিকদের বলেন, বিশ্বনেতারা বলেছেন রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ মানবিকতায় বিশ্বে রোল মডেল। নিজেদের অনেক সমস্যা থাকার পরও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তে বাংলাদেশ অসহায়-নিপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close