বিনোদন

কাটপিসের কারণে সিনেমা করা হয়নি : দীপা খন্দকার

Spread the love

শেরপুর ডেস্কঃ ছোট পর্দার নন্দিত অভিনেত্রী দীপা খন্দকার ‘রিভেঞ্জ’ শিরোনামে নতুন একটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। দুই দশকের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে এটি হতে যাচ্ছে তাঁর তৃতীয় সিনেমা। সিনেমাটিতে তাঁকে দেখা যাবে মায়ের চরিত্রে, সব ঠিক থাকলে ১২ জুন থেকে শুটিং শুরু হচ্ছে।
সোমবার দুপুরে দীপা খন্দকার বলেন, ‘এটি এফডিসি ঘরোনার প্রথম… মানে বাংলাদেশি কমার্শিয়াল প্রথম সিনেমা হতে যাচ্ছে। সেজন্য বেশি ভালো লাগছে। এর আগে কলকাতার কমার্শিয়াল সিনেমায় অভিনয় করেছি। এই সিনেমার চরিত্র আমার ভালো লেগেছে।’
কলকাতার ‘ভাইজান এলো রে’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় প্রথম অভিনয় করেন দীপা খন্দকার। এরপর সম্প্রতি শুটিং করছেন ‘পায়ের ছাপ’ শিরোনামে একটি সিনেমায়।
দীর্ঘ ক্যারিয়ারে টিভি নাটকের দর্শককে মুগ্ধ করে চলা এই অভিনেত্রীর সিনেমার সংখ্যা এত কম কেন? এমন প্রশ্নে অভিনেত্রীর উত্তর, ‘যখন প্রচুর সিনেমার প্রস্তাব পেতাম, ২০০০ সালের দিকে, তখন আসলে সিনেমার অবস্থা একটু খারাপ ছিল। যে কারণে তখন সিনেমা করিনি। গেল পাঁচ-সাত বছর ধরে অনেক ভালো ভালো সিনেমা হচ্ছে। এখন করতে চাইছি এবং মানসিকভাবে প্রস্তুত আছি যে সিনেমা করব। ভালো চরিত্র পেলেই করব, এমন একটা ব্যাপার ছিল। আমার চরিত্রের গুরুত্ব আছে, এমন চরিত্র পেলেই করব। শুধু শুধু আছি, এমন চরিত্রে আসলে করতে চাইনি। যে কারণে আসলে সংখ্যাটা কম।’
২০০০ সালের দিকে সিনেমার একাধিক প্রস্তাব ফেরানোর ব্যাপারটি দীপা খন্দকার বিশদভাবে ব্যাখ্যা করেছেন এভাবে, ‘তখন আসলে কাটপিসের রমরমা যুগ ছিল। ওই কাটপিসের সময়ে আসলে কাজ করতে চাইনি। বয়সও কম ছিল তখন, আসলে সাহসে কুলায়নি। ধরেন, আমি ভালো দেখে একটা সিনেমা করলাম, সেখানে কাটপিস জুড়ে দিল। তখন সেটা আমার ইমেজের জন্য ক্ষতি হবে মনে করেছি। যে কারণে আর করা হয়নি।’
দীপা খন্দকার জানিয়েছেন, গুরুত্বপূর্ণ আর রুচিশীল চরিত্র পেলে সিনেমায় নিয়মিত দেখা মিলবে তাঁর। বর্তমান সিনেমা-পরিস্থিতি নিয়ে এই অভিনেত্রীর ভাষ্য, ‘আমার দর্শকের জন্য আমার কাজ করা। আমি তো হলিউডের দর্শকের জন্য কাজ করব না, আমার সেই সুযোগ হবে না। আমি আমার বাংলাদেশের দর্শকের জন্য কাজ করব। আমাদের দর্শকের রুচির যতটুকু পরিবর্তন আমরা করতে পারি, ভালো কাজে অভ্যস্ত করতে পারি, সেই চেষ্টাটুকুই আমাদের সবার করা উচিত।’
‘রিভেঞ্জ’ সিনেমায় দীপা খন্দকার ছাড়াও দেখা মিলবে অভিনেত্রী শবনম বুবলী, জিয়াউল রোশান, মিশা সওদাগরসহ অনেককে। সিনেমাটির মাধ্যমে প্রথমবার পরিচালনায় নাম লেখাচ্ছেন প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল।
১৯৯৯ সালে ‘কাকতাড়ুয়া’ নাটকের মাধ্যমে টেলিভিশনে ক্যারিয়ার শুরু করেন দীপা খন্দকার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close