স্থানীয় খবর

ধুনটে জমিজমা নিয়ে বিরোধ যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

Spread the love

ধুনট(বগুড়া) প্রতিনিধি
বগুড়ার ধুনটে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে উপজেলা যুবলীগের সদস্য সবুজ উদ্দিন ওরফে সবুরকে (৩৫) কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগে উঠেছে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসানের বিরুদ্ধে । ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার উপজেলার নিমগাছি ইউনিয়নের নান্দিয়ারপাড়া গ্রামে।
জানা গেছে , উপজেলার নান্দিয়ারপাড়া গ্রামের মৃত রহিম বক্সের ছেলে উপজেলা যুবলীগের সদস্য সবুজ উদ্দিন ওরফে সবুরের সাথে নিমগাছি ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক একই গ্রামের মৃত জোনাব আলী ফকিরের ছেলে কামরুল হাসানের জমি জমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। এমনকি একে অপরের মধ্যে আদালতে একাধিক মামলা বিচারাধীন ছিল।
পল্লী পশু চিকিৎসক সবুজ উদ্দিন সবুর বুধবার দুপুরে নান্দিয়ার পাড়া পশ্চিম পাড়া এলাকায় একটি গাভীর চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি ফেরার সময় কামরুল হাসান ও তার সহযোগী সবুজ ফকির , সাগর মিয়া, ও বিপল নামের আরো তিন জন সবুজ উদ্দিন সবুরকে স্থানীয় শহিদুল ইসলামের পরিত্যাক্ত বাড়ির উঠানে নিয়ে রাম দা দিয়ে এলাপাথাড়ী কুপিয়ে রক্তাত্ব অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন আহত সবুজ উদ্দিন সবুরকে বগুড়া শহিদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সবুজ উদ্দিন সবুর মারা যায়।
খবর পেয়ে ধুনট থানার এস, আই মনতাজ উদ্দিন , এস, আই প্রদিপ কুমার ঘটনাস্থলে গিয়ে সবুজ উদ্দিন সবুরের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
এস আই মনতাজ উদ্দিন জানান, সবুজ উদ্দিন সবুুরের পায়ের রগ কাটা সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন জানান , সবুজ উদ্দিন সবুরের হত্যার বিষয়ে মামলা দায়ের প্রস্ততি চলছে। ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close