বিদেশের খবর

রণক্ষত্রে বাগদাদ, নিহত ৩৩০

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: ক্ষোভে ফুসছে ইরাকের জনগণ। কর্মসংস্থানের সংকট, নিম্নমানের সরকারি পরিষেবা এবং দুর্নীতির অভিযোগ তুলে রবিবারও রাজধানী বাগদাদের রাজপথে বিােভে নামেন দেশটির সাধারণ মানুষ।
নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বিােভকারীদের দফায় দফায় সংঘর্ষে রণেেত্র পরিণত হয় ইরাকের রাজধানী বাগদাদ। আহত হন অনেকে। এমন অস্থিরতার মধ্যেই দেশটিতে আকস্মিক সফরে গেছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনালাপের পর পেন্স জানান, চলমান সংকট কাটিয়ে উঠতে যথাযথ পদপে নিয়েছে বাগদাদ। আন্দোলন দমাতে নিরাপত্তা বাহিনী টিয়ার শেল, রাবার বুলেট ছুঁড়লে এতে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়ে ওঠে। ােভে শহরের দোকানপাট ও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক তাণ্ডব চালায় বিােভকারীরা। উভয়পরে সংঘর্ষে বাগদাদের রাজপথ পরিণত হয় রণেেত্র। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, বিনা উস্কানিতে তাদের উপর গুলি চালিয়েছে পুলিশ।তারা বলছে, কোন কারণ ছাড়াই গুলি চালাচ্ছে সরকারী বাহিনী। তবে, আমাদের কাছে কোন অস্ত্র নেই। অধিকারের দাবিতে আন্দোলন করে আসছি আমরা।
আমাদের আন্দোলন শান্তিপূর্ণ। চাকরি নেই, উপার্জনেরও কোন পথ খুঁজে পাচ্ছি না। জীবনের কোন নিরাপত্তা নেই। এভাবে একটা দেশ কিভাবে চলবে।
এমন সংকটের মধ্যেই ইরাকের আনবার প্রদেশের আল-আসাদ বিমান ঘাঁটিতে আকস্মিক সফরে যান মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। দেশটিতে অবস্থানরত মার্কিন সেনাদের সঙ্গে সাাৎ করেন তিনি। এছাড়া, ইরাকের চলমান সরকারবিরোধী আন্দোলনের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী আদেল আব্দেল মাহদি। সঙ্গে ফোনালাপের পর মাইক পেন্স জানান, সংকট কাটিয়ে উঠতে দ্রুত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইরাক সরকার।
মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেন, ইরাকে সম্প্রতি সহিংস পরিস্থিতির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে আলোচনা হয়েছে। তিনি আমাকে আশ্বস্ত করেছেন যে, সহিংসতা কাটিয়ে উঠতে তার সরকার শান্তিপূর্ণ উপায়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে সাধারণ মানুষের সুরা ও তাদের দাবির বিষয়ে ইরাক সরকার সব সময় সচেতন রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মাহদি। ইরাকে চলমান সরকারবিরোধী বিােভে এ পর্যন্ত নিহত হয়েছেন অন্তত ৩৩০ জন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close