খেলাধুলা

নেইমার-এমবাপে দুজনকেই চান জিদান!

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: নেইমার ও কাইলিয়ান এমবাপেহাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ-প্যারিস সেন্ত জার্মেই। প্যারিসের কাবটির বারুদে আক্রমণভাগ সামলানো মাদ্রিদের কাবটির জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের। নেইমার ও কাইলিয়ান এমবাপের কেউ একজন না থাকলেই কি ভালো হতো? রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান কিন্তু পিএসজির একাদশে দুজনকেই চাইছেন!
একেবারে সঠিক সময়ে ফিট হয়ে ফিরেছেন নেইমার। এমবাপেও অসুস্থতা কাটিয়ে শতভাগ ফিট। পিএসজির জন্য চরম সুখের খবর হলেও রিয়ালের জন্য তা দুঃসংবাদ। বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা দুই তারকার বিপে লড়াইয়ের আগে যে কোনও কোচেরই কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়বে। জিদান অবশ্য খুব বেশি চিন্তিত নন। পিএসজির দুই তারকাকে সামলাতে তার দল প্রস্তুত বলেই জানিয়েছেন তিনি।
এই ফরাসি কাবটির বিপে বিধ্বস্ত হয়ে এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগ মৌসুম শুরু করেছিল রিয়াল। নেইমার ও এমবাপেকে ছাড়াই পিএসজি ৩-০ গোলে হারিয়েছিল মাদ্রিদের কাবটিকে। এবার পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে গিয়েছে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। রিয়ালের দুশ্চিন্তা বেশি হওয়াই স্বাভাবিক।
যদিও শান্ত আছে জিদান। পিএসজির বিপে তার দল পুরোপুরি প্রস্তুত। নেইমার কিংবা এমবাপের মধ্যে কে না থাকলে খুশি হবেন, সংবাদ সম্মেলনে এমন প্রশ্নে ফরাসি কোচের উত্তর, ‘নেইমার নাকি এমবাপে? আমি কাউকেই বাদ দিতে চাইছি না। তারা দুজনই প্রস্তুত এবং দুজনই খেলতে পারে, তাই আমার বাছাই করার প্রয়োজনও নেই। আমরা দুর্দান্ত একটি দলের বিপে লড়তে যাচ্ছি।’
এমবাপের প্রতি জিদানের ভালোবাসা নতুন নয়। ‘প্রিয়’ খেলোয়াড়ের বিপে লড়াইয়ের আগে আরেকবার পুরোনো কথাই শোনালেন ফরাসি কিংবদন্তি, ‘আপনারা সবাই জানেন আমি ওকে অনেক দিন থেকে চিনি। ব্যক্তিগত জায়গা থেকে ওকে আমি পছন্দও করি। অনেক আগে সে ট্রায়াল দিতে এখানে (রিয়াল মাদ্রিদ) এসেছিল। সে এখন প্রতিপরে খেলোয়াড়, তাই আমার খুব বেশি কিছু বলার নেই।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close