বিদেশের খবর

পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হলেন শাহবাজ শরীফ

Spread the love


শেরপুর ডেস্ক: রাজনৈতিক অঙ্গনে গত কয়েকদিন ধরে চলমান চরম নাটকীয়তার অবসান ঘটিয়ে সংসদে নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) নেতা শাহবাজ শরীফ। সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও তার দলের সাংসদদের পদত্যাগ এবং সংসদ বর্জনের পর অধিবেশনে উপস্থিত ১৭৪ জন শাহবাজকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন।
ইমরানের পর পাকিস্তানের ২৩তম প্রধানমন্ত্রী হলেন শাহবাজ শরীফ। ব্যবসা সংগঠনের নেতৃত্ব, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব ও বিরোধী দলীয় নেতার ভূমিকার পর কঠিন এক সময়ে সরকারপ্রধান হলেন তিনি। ফলে দ্বিতীয়বারের মতো এক পরিবার থেকে দুই প্রধানমন্ত্রী পেল পাকিস্তান। ইমরান খানের আগে শাহবাজের বড় ভাই নওয়াজ শরীফ দেশটির নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।
সোমবার (১১ এপ্রিল) পাকিস্তানের সংসদ অধিবেশেনে শাহবাজ শরীফকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করে অভিনন্দন জানান সংসদ সদস্যরা। পরে সংসদে ভাষণ দেন নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী। গত ৩ এপ্রিল সংসদে তার আনা অনাস্থা প্রস্তাবের ফলে গত শনিবার প্রধানমন্ত্রীর পদ হারাতে হয় ইমরান খানকে।
এর আগে পাকিস্তান সংসদ থেকে পদত্যাগ করেছেন সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও তার দল পিটিআইয়ের সদস্যরা। তারা সংসদ অধিবেশনও বর্জন করেছেন।
শনিবার থেকেই এ ধরনের গুঞ্জন চলছিল। এদিকে আজ সকাল থেকেও একই গুঞ্জন চলতে থাকে রাজেনৈতিক অঙ্গনে। অবশেষে গুঞ্জনই সত্য হলো।
পাকিস্তান মুসলিম লিগ নওয়াজ (পিএমএলএন)-এর নেতা ৭০ বছর বয়স্ক শাহবাজ শরিফ পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ভাই এবং তিনি দেশটির সবচেয়ে জনবহুল প্রদেশ পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন।

শাহাবাজ শরিফ রবিবার প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য তার প্রার্থিতা জমা দেন। পাকিস্তানের অন্য বৃহৎ রাজনৈতিক দল পিপলস পার্টির বিলাওয়াল ভুট্টো-জারদারিও তার প্রতি সমর্থন প্রকাশ করেছিলেন।
গত ৯ এপ্রিল মধ্যরাতে ভাগ্য নির্ধারণী অনাস্থা প্রস্তাবের ভোটাভুটিতে অবশেষে হেরে যান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তার বিপক্ষে ভোট পড়ে ১৭৪টি। প্রস্তাব পাসের জন্য দরকার ছিল ১৭২ ভোট। এর মধ্য দিয়ে পাকিস্তানের ইতিহাসে সৃষ্টি হলো এক নতুন নজির। দেশটিতে এই প্রথম কোনো প্রধানমন্ত্রী অনাস্থা ভোটে ক্ষমতা হারালেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close