বিদেশের খবর

প্রেমিকাকে খুশি করতে বিপুল অর্থ ‘চুরি’!

Spread the love


শেরপুর ডেস্কঃ প্রেমিকাকে খুশি রাখতে মানুষ কত কিছুই না করে। এবার এক ‘পাগল’ প্রেমিক তার প্রেমিকাকে খুশি করতে ব্যাংকের ৭ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। কিন্তু এই অন্ধপ্রেম যে তাকে কত বড় বিপদে ফেলতে পারে এখন তা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন তিনি। ভারতের হতভাগ্য এই মানুষটির এখন ঠাঁই হয়েছে শ্রীঘরে। —সংবাদ প্রতিদিন
অভিযুক্তের নাম হরি শংকর। বেঙ্গালুরুর হনুমন্তনগরের একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের ম্যানেজার তিনি। সম্প্রতি ডেটিং অ্যাপে এক তরুণীর সঙ্গে আলাপ হয়েছিল তার। ধীরে ধীরে তাদের সম্পর্ক গভীর হয়। আর তারপরই ব্যাংক থেকে মোটা টাকা হাতিয়ে প্রেমিকার সামনে ‘হিরো’ হওয়ার চেষ্টা করেন সেই ব্যক্তি। ঐ ব্যাংকের জোনাল ম্যানেজারের অভিযোগ, আর্থিক অনিয়মের মাধ্যমে ৫ কোটি ৭০ লাখ রুপি (৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা প্রায়) তুলে নিয়েছেন ব্যাংক ম্যানেজার শংকর। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৩ থেকে ১৯ মে’র মধ্যে। এতে শংকর একা নয়, সাহায্য করেছেন ব্যাংকের দুই সহকর্মী কৌশল্যা এবং মুনিরাজুও। ব্যাংক থেকে অর্থ লোপাটের অভিযোগে এরই মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে শংকরকে। আপাতত ১০ দিনের জন্য পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন অভিযুক্ত। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তার দুই সহকর্মীকেও।
পুলিশ জানিয়েছে, এক নারী গ্রাহক ঐ ব্যাংকে ১ কোটি ৩০ লাখ রুপি ফিক্সড ডিপোজিট করেছিলেন, যা দেখিয়ে ৭৫ লাখ রুপি লোন নেন। এর জন্য প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্র ব্যাংকে জমা দিয়েছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেই কাগজপত্র এবং ফিক্সড ডিপোজিটকে কাজে লাগিয়েই প্রতারণার ছক কষেন শংকর। গ্রাহকের ঐ অর্থকে সিকিউরিটি হিসেবে রেখে ৫ কোটি ৭০ লাখ রুপি তুলে নেওয়া হয় ঐ ব্যাংক থেকে। এই অর্থ কয়েক ভাগে ভাগ করে পশ্চিমবঙ্গ-কর্ণাটকের বিভিন্ন শহরের মোট ২৮টি আলাদা আলাদা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে রেখে দেওয়া হয়। কিন্তু এত কিছুর পরও শেষ রক্ষা হলো না। ধরা তাকে পড়তেই হলো। যদিও অভিযুক্ত ব্যক্তি তার বিরুদ্ধে আনীত সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close