স্থানীয় খবর

শেরপুরে সাংবাদিকতার পথিকৃৎ মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু’র ৬৪তম জন্মদিন আজ

Spread the love


ষ্টাফ রির্পোটার: সিরাজগঞ্জের কালিয়ার জমিদার মুনসী নূরউদ্দিন সিদ্দিকীর বংশধর বগুড়া প্রেসক্লাবের অন্যতম সদস্য ,বগুড়া জেলার একমাত্র সরকারি মিডিয়ালিষ্টভুক্ত সাপ্তাহিক পত্রিকা “আজকের শেরপুর“ এর সম্পাদক ও প্রকাশক দক্ষিন বগুড়ার খ্যাতিমান সাংবাদিক আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু’র ৬৪তম জন্মদিন আজ। আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু ১৯৫৮ সালে শেরপুর উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের ভাটরা গ্রামে ঐতিহ্যবাহী মুনসী পরিবারে দাদা মরহুম মুনসী আব্দুল কুদ্দুসের বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মরহুম মুনসী আব্দুল মালেক।
বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় সাংবাদিকতার অন্যতম পথিকৃৎ আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু। তিনি প্রায় ৪০ বছর যাবত সাংবাদিকতার আলো ছড়াচ্ছেন এই জনপদে।
বগুড়া প্রেসক্লাবের অন্যতম সদস্য আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু শেরপুর থেকে প্রকাশিত প্রথম ও একমাত্র সরকারি মিডিয়ালিষ্টভুক্ত সাপ্তাহিক আজকের শেরপুর পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক। তিনি শেরপুর নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটনেট এর উপদেষ্টা সম্পাদক এবং শেরপুর মডেল প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা। এছাড়া তিনি জাতীয় দৈনিক সংবাদ এর উপজেলা প্রতিনিধি হিসাবে এখনও কর্মরত রয়েছে।
১৯৮৬ সালে উত্তরঙ্গের অন্যতম বর্ষীয়ান সাংবাদিক আমানউল¬াহ খানের অনুপ্রেরণায় দৈনিক বাংলাদেশ পত্রিকায় সাংবাদিকতায় তার হাতে খড়ি। এরপর বগুড়া শহরে দৈনিক বাংলাদেশ ও দৈনিক উত্তরবার্তা পত্রিকায় ষ্টাফ রির্পোটার, সহকারি সম্পাদক ও মফস্বল বার্তা সম্পাদক হিসাবে কাজ করেন। ১৯৯২ সাল থেকে তিনি মহান স্বাধীনতা দিবসে আজকের শেরপুর নামে একটি সংকলন বের করতে শুরু করেন। এরপর এলাকাবাসীর অনুপ্রেরণায় স্থানীয় সংবাদ প্রকাশের লক্ষ্যে ২০০০ সাল থেকে প্রকাশ করেন শেরপুরের প্রথম সাপ্তাহিক পত্রিকা “আজকের শেরপুর” । আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতির সঙ্গেও জড়িত। ১৯৮৩ সালের ৪ঠা সেপ্টেম্বর শেরপুর উপজেলা যুবলীগের প্রথম ত্রি-বার্ষিক সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ঐ সন্মেলনে মুনসী সাইফুল বারী ডাবলুকে সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত করে শেরপুর উপজেলা যুবলীগের কমিটি গঠন করা হয়।
আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু ১৯৮৩ সাল থেকে প্রায় একযুগ শেরপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি শেরপুর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও বগুড়া জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি ছিলেন। তিনি শেরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব বিষয়ক সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক ও দুই মেয়াদে যুগ্ম সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বর্তমানে শেরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি। তিনি উপজেলা স্কাউট্স এর সহ সভাপতি, তিনি শেরপুর নাগরিক স্বার্থ সংরক্ষন কমিটির সভাপতি। তিনি শেরপুর সার্বিক উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি। তিনি শেরপুর ইউনিভার্সাল টেকনিক্যাল বিএম কলেজ গভনিং বডির সভাপতি। তিনি ভাটরা নূর কুদ্দুস জামে মসজিদ ও ইয়াছননেছা এতিমখানা পরিচালনা কমিটির সভাপতি। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন।
মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু বলেন ১৯৯৪ সাল থেকে বগুড়া প্রেসক্লাবের একজন গর্বিত সদস্য হিসাবে আছি। অনেক বর্ষীয়ান সাংবাদিকদের সাথে মেলা মেশার সুযোগ হয়েছে। বহু প্রশিক্ষণ নিয়েছি। পরবর্তীতে এলাকার তৃণমুলের খবর প্রকাশের প্রত্যাশা নিয়ে সাপ্তাহিক পত্রিকা প্রকাশ করি। পত্রিকাটি যখন প্রথম প্রকাশিত হয় তখন শেরপুরে সাংবাদিক ছিল হাতে গোনা ৭/৮ জন। এখন অনেকেই সাংবাদিক পরিচয় দেয়। সাংবাদিকতা পেশায় নিষ্ঠা ও সততার সাথে সবাইকে কাজ করার জন্য তিনি আহবান জানান।
মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু’র একমাত্র ছেলে প্রভাষক নাহিদ আল মালেক এলএলবি, বিএ অনার্স এমএ (বাংলা) এমএসএস (সাংবাদিকতা ও গনযোগাযোগ বিভাগ) রাজশাহী বিশ্ব বিদ্যালয়। সে জাতীয় দৈনিক ভোরের কাগজের শেরপুর উপজেলা প্রতিনিধি, শেরপুর নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটনেট সম্পাদক প্রকাশক ও সাপ্তাহিক আজকের শেরপুর পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক এবং শেরপুর টাউনক্লাব পাবলিক লাইব্রেরী অনার্স মহিলা কলেজে প্রভাষক হিসাবে কর্মরত। তার একমাত্র মেয়ে মোছা: ফারজানা পারভীন কলি গৃহবধু।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close