জেলার খবর

ইভিএমে কারচুপি বা জাল ভোট দেওয়ার সুযোগ নেই-ইসি রাশেদা সুলতানা

Spread the love


শেরপুর ডেস্ক: জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দলকে অংশ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) রাশেদা সুলতানা। তিনি বলেন, কমিশনের সামনে নির্বাচন করার আইন ও সংবিধান প্রণীত হয়েছে। কেউ আসবেন না বললে তো আমরা সংবিধান লঙ্ঘন করতে পারি না। দেশে ক্রাইসিস (সংকট) তৈরি করে দিতে পারবো না। আর সেটা উচিতও হবে না। এতে দেশে-নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে। এতে দেশ ও জনগণের ক্ষতি হবে। তাই আমরা আইনের যে কাঠামো রয়েছে তার মধ্যে থেকেই নির্বাচন করবো।
শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বগুড়া সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।
তিনি আরও বলেন, ইভিএমে কারচুপি বা জাল ভোট দেওয়ার সুযোগ নেই। যারা ইভিএম নিয়ে সংশয়ের কথা বলেন, তাদের অনেকবার বিশেষজ্ঞ নিয়ে ত্রুটি বের করার আহবান জানানো হয়েছে। তাই শুধু মুখে বললে চলবে না, ইভিএমে কী কী ত্রুটি আছে তার প্রমাণ চাই। এখন পর্যন্ত কোনও রাজনৈতিক দল বা অন্য কেউ সমস্যা বের করতে পারেনি। তাই আগামী নির্বাচনে প্রায় ১৫০ আসনে ইভিএমে নির্বাচন করতে চাইছি।
নির্বাচন কমিশনার বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ। যেখানে ভোটাররা ভোট দিয়ে পছন্দের প্রার্থী নির্বাচন করবেন। আমরা সবসময় চেয়েছি, এখনও চাইছি, সবাই নির্বাচনে আসবেন।
এ সময় একটি রাজনৈতিক দলকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, আমরা আহ্বান করবো নির্বাচনে আসবেন তারা। কারণ তারাও দেশকে ভালোবাসেন। জনগণের বন্ধু তারাও।
রাশেদা সুলতানা আরও বলেন, আগামী নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। আর এটা চলমান বিষয়। সব নির্বাচনের বুথে সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা থাকবে। ইতোমধ্যে সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে ইভিএমের ব্যবস্থা থাকলেও সিসি ক্যামেরা থাকবে না বলে জানান তিনি।
এর আগে, আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়। বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সালাহউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্তীসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close