দেশের খবর

কুষ্ঠ রোগীদের ওষুধ দেশে তৈরির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: বাংলাদেশের ওষুধ কোম্পানিগুলোর প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুষ্ঠ রোগীদের জন্য ওষুধ তৈরি করতে স্থানীয় ওষুধ কোম্পানিগুলোর প্রতি আহ্বান জানান। এ সময় তিনি অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেন, ২০৩০ সালের আগেই দেশ থেকে কুষ্ঠ রোগ নির্মূল করা হবে। বুধবার সকালে প্যানপ্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে ‘২০৩০ সালের মধ্যে শূন্য কুষ্ঠ উদ্যোগ’ শীর্ষক জাতীয় সম্মেলন ২০১৯ উদ্বোধনকালে তিনি কথাগুলো বলেন।
তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশে অনেক ওষুধ কোম্পানি রয়েছে যারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ওষুধ রফতানি করে এবং তাদের ওষুধের মান খুবই ভাল। তাই আমি তাদেরকে বিশেষায়িত ওষুধ তৈরি করার জন্য অনুরোধ জানাতে চাই যা কুষ্ঠ রোগীদের জন্য দরকার। এসব ওষুধ রোগীদের মধ্যে বিনামূল্যে বিতরণ করার ব্যবস্থা করুন যা দ্রুত আমাদের ল্য অর্জনে সহায়ক হবে।
শেখ হাসিনা ২০৩০ সালের আগেই কুষ্ঠমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার ল্েয জাতীয় কুষ্ঠ কার্যক্রম জোরদার করার জন্য স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা এবং মাঠ পর্যায়ের কর্মীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি যে, এ ল্েয আমরা যদি আন্তরিকভাবে কাজ করি, তাহলে আমরা ল্যমাত্রা ২০৩০ সালের অনেক আগেই কুষ্ঠ মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার ল্য অর্জনে সম হবো।
কুষ্ঠ রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদেরকে সমাজের অংশ হিসেবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে কুষ্ঠ রোগীদের সঙ্গে আচরণ করার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রী কুষ্ঠ আক্রান্ত লোকদের প্রতি সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টি এবং নেতিবাচক মনোভাব পরিহার করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি বলেন, ‘আমি লোকজনকে বলতে চাই যে, তারা আমাদের সমাজেরই অংশ। তাই, তাদেরকে দূরে ঠেলে দেয়া সঠিক নয়। কোন ব্যক্তির দেহে কুষ্ঠ রোগ সনাক্ত হলে, আপনাদেরকে সহানুভূতির সঙ্গে তার সঙ্গে আচরণ করতে হবে এবং তিনি যাতে সুস্থ হয়ে ওঠেন সে ল্েয চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। এটি খুবই জরুরি।’
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি শেখ ফজলুল করিম সেলিম এবং জাপানের নিপ্পন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও ডাব্লিউএইচও গুডউইল অ্যাম্বাসেডর ইওহেই সাসাকাওয়া বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন। কুষ্ঠ রোগ ও এর চিকিৎসার সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কিত একটি প্রামাণ্য চিত্র অনুষ্ঠানে প্রদর্শন করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close