জেলার খবর

স্বাধীনতা যুদ্ধে পুলিশ সদস্যদের সাহসী ভূমিকা সর্বদা চিরঅম্লান- এমপি হাবিব

Spread the love

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়া ৫ শেরপুর-ধুনট আসনের সাংসদ এবং অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাবিবর রহমান বলেছেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে পুলিশ সদস্যদের সাহসী ভূমিকা সর্বদা চিরঅ¤øান। মহান মুক্তিযুদ্ধে পুলিশের দ ভূমিকা ও বীরত্বের পরিচয় সর্বদাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশে অয় হয়ে রয়ে যাবে।
বগুড়া জেলা পুলিশের আয়োজনে প্রতি বছরের ন্যায় মঙ্গলবার সকালে পুলিশ লাইন্স স্কুল এন্ড কলেজ অডিটোরিয়ামে মহান বিজয় দিবস-২০১৯ উপল্েয আয়োজিত অবসরপ্রাপ্ত বীর পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপোরোক্ত কথাগুলি বলেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি হাবিবর রহমান আরো বলেন, বর্তমান সরকার দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন এবং সাধারণ মানুষের সমতা অর্জনে ব্যপক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছে। সেই সাথে তিনি অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্যদের চাহিদাস্বরুপ রেশন পাওয়ার ব্যবস্থা এবং সার্বিক সমস্যাগুলো সুনির্দিষ্টভাবে সংসদে উপস্থাপনেরও প্রতিশ্রæতি দেন এবং প্রতি বছর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সম্মাননা অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য তিনি বিশেষভাবে জেলা পুলিশ পরিবারকে ধন্যবাদ জানান। সভায় নিজেদের অতীত জীবনের স্মৃতিচারণ এবং বর্তমানের বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন অবসরপ্রাপ্ত সহকারী পুলিশ সুপার ইমতেজার রহমান, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে বগুড়া ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর (শহর ও যানবাহন) সালেকুজ্জামান খান, মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ পরিদর্শক (অব:) মনসুর রহমান ও আজিজুল ইসলাম, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সোনাতলার আব্দুল আজিজের স্ত্রী রাবেয়া বেগম এবং অব: পুর্লিশ সদস্য আবুল ফজল। বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বিপিএম (বার) এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) তাপস কুমার পালের সঞ্চালনায় সভাপতির বক্তব্যে পুলিশ সুপার বলেন স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ও পুলিশ পরিবারের সদস্যদের ভূমিকাকে স্মরণ করে সকল অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা জানান। সেই সাথে অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেও সর্বদা তাদের যেকোন সমস্যায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে জেলা পুলিশের পে শতভাগ সেবা প্রদানের প্রতিশ্রæতি দেন জেলা পুলিশের এই কর্ণধার। অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশের পে মোট ১২৫ জন বীর পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের সদস্যদের লাল সবুজ উত্তরীয় ও সম্মাননা উপহার প্রদান করা হয়। এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার আব্দুল জলিল পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সনাতন চক্রবর্তী ও শেরপুর সার্কেলের গাজিউর রহমান, সিনিয়ার সহকারী পুলিশ সুপার যথাক্রমে সাবিনা ইয়াসমিন, রাজিউর রহমান ও এ.এইচ.এম এরশাদ, পুলিশ লাইন্স স্কুল এন্ড কলেজের অধ্য শাহাদৎ আলম ঝুনু, বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এস.এম বদিউজ্জামান, শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দিন, ইন্সপেক্টর অর্পণ কুমার দাস সহ জেলা পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যবৃন্দ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close