বিদেশের খবর

আরও ১০০টি মার্কিন স্থাপনা টার্গেট করা হয়েছে : ইরান

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: ইরাকে মঙ্গলবার মধ্যরাতে মার্কিন সেনা ও যৌথ বাহিনী ব্যবহৃত দু’টি সামরিক ঘাঁটিতে হামলা করে ইরান, যার মধ্যে একটি হলো আল আসাদে এবং অপরটি হলো ইরবিলে। স্থানীয় সময় রাত ১ টা ২০ মিনিটে প্রথম হামলাটি করা হয় বলে জানা যায়।
গত শুক্রবার ওই একই সময়ে বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ড্রোন হামলায় মৃত্যু হয় ইরানের সেনাবাহিনীর অভিজাত কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলাইমানির। এই ঘটনার প্রতিশোধ নিতে ঠিক ওই সময়েই প্রথমে ইরাকের আল আসাদে অবস্থিত মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ছয়টি পেণাস্ত্র নিপে করা হয়। তার প্রায় দু’ঘণ্টা পর দ্বিতীয় বার হামলা করা হয়। তবে ১৫টি নয়, সব মিলিয়ে মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে হামলার সময় ইরান মোট ২২ টি পেণাস্ত্র ছোড়ে বলে দাবি করেছে ইরাক।
এর আগে জেনারেল কাসেম সোলাইমনি হত্যার পর প্রকাশ্যে ইরানকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জেনারেল সোলাইমানি হত্যার বদলা হিসেবে কোনো মার্কিন নাগরিক বা প্রতিষ্ঠানের উপর হামলা হলে, আমেরিকা ইরানের আরও ৫২ জায়গা আক্রমণ করার জন্য চিহ্নিত করে রেখেছে বলে দাবি করেছিলেন ট্রাম্প।
তবে বুধবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়েছে ইরান। ইরানের সেনাবাহিনীর বিশেষ সূত্রকে উদ্ধৃত করে ওই টিভি চ্যানেলে বলা হয়, ইরাকে আরও ১০০টি জায়গা চিহ্নিত করে রাখা হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রতিশোধ নিতে এলেই চিহ্নিত ওই ১০০টি জায়গায় পাল্টা আঘাত হানবে ইরান।
এদিকে, ইরাকে অবস্থিত দুটি মার্কিন সেনা ঘাঁটিতে ইরানের ছোড়া পেণাস্ত্রের আঘাতে কমপে ৮০ জন ‘মার্কিন সন্ত্রাসী’ নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে তেহরান। জেনারেল কাসেম সোলাইমানির হত্যার বদলা নিতেই এই হামলা চালানো হয়েছে বলেও জানিয়েছে তারা।
ইরানের সেনাবাহিনীর ‘ইসলামিক রেভলিউশনারি কোর’-এর একটি সূত্রকে উদ্ধৃত করে বুধবার সকালে এমনটাই জানিয়েছে সে দেশের সরকারি টিভি চ্যানেল।
তাদের দাবি, ইরাকে মার্কিন সেনা ও যৌথ বাহিনীকে নিশানা করে মোট ১৫টি ব্যালিস্টিক পেণাস্ত্র ছুড়েছিল তারা, যার মধ্যে একটিকেও প্রতিহত করতে পারেনি মার্কিন বাহিনী। বরং তার আঘাতে অন্তত ৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে। যাদের তারা ‘মার্কিন জঙ্গি’ বলে অভিহিত করেছে। ইরানি হামলায় তিগ্রস্ত হয়েছে বেশ কয়েকটি মার্কিন হেলিকপ্টার এবং সামরিক সরঞ্জাম।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close