স্থানীয় খবর

আদমদীঘির নাগর নদে ফের মাটি ও বালু উত্তোলনের মহোৎসব

Spread the love

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি :উপজেলা প্রশাসনের নাকের ডকায় কোন তোয়ক্কা না করে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার কুন্দগ্রাম ও চাঁপাপুর ইউনিয়ন এলাকায় নাগর নদের তলদেশ থেকে ভেকু ও ড্রেজার মেশিন লাগিয়ে ফের মাটি কাটা ও বালু উত্তোলনের মহোৎসব চলছে। ফলে এলাকার শতশত একর আবাদী জমি বসতবাড়ীসহ বাঁধ হুমকির মূখে পড়লেও কোন ক্রমেই থামানো যাচ্ছেনা মাটি ও বালুদস্যুদের এই অবৈধ তান্ডব।
আদমদীঘি উপজেলার কুন্দগ্রাম ও চাঁপাপুর ইউনিয়নের আবাদি জমি ও বসদবাড়ি বন্যার গ্রাস থেকে রক্ষার জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ড প্রায় ২০ বছর আগে নাগরনদের ধার ঘেঁষে বেড়ী বাঁধ নির্মাণ করেন। এদিকে কুন্দগ্রাম ইউনিয়নের হারভাঙ্গা, সরদারদহ, ফুলবাগিচা, কালিতলা পালংকড়ি ও চাঁপাপুর ইউনিয়নের বাঘাদহ ও জুগনিতলাসহ কয়েকটি এলাকায় রুহুল; শাহিন, রাজা, শাহজাহান, খোকনসহ বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি দলীয় প্রভাব বিস্তার করে নাগরনদের তলদেশ থেকে শ্রমিক লাগিয়ে ভেকু মেশিন দিয়ে অভিনব কায়দায় বাঁধ ঘেঁষে মাটি কেটে বড়বড় গর্ত সৃষ্টি করছে।
এছাড়া শ্যালো চাালিত ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের মহোৎসব চালানো হচ্ছে। তারা প্রশাসনকে উপেক্ষা করে দিন রাত নদ থেকে মাটি কেটে ও বালু উত্তোলন অব্যাহত রেখেছে। এসব মাটি ও বালু ট্রাক যোগে ইট ভাটাসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করছেন। নদের তলদেশ থেকে গভীর পর্যন্ত মাটি খনন করায় বাঁধের পাড় দেবে ও ভেঙ্গে পাশের কয়েকটি গ্রামের বসতবাড়ী, বাঁধ ও শতশত একর ফসলি জমি ফাঁটল ধরে হুমকির মুখে পড়েছে। নির্বাহি ম্যাজিষ্ট্রেট মাঝে মধ্যে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সরঞ্জাম জব্দ করে ধ্বংস করলেও থামছেনা এসব কারবার।উপজেলা নির্বাহি অফিসার একেএম আব্দুল্লাহ বিন রশিদ বিষয়টি পাশ কাটিয়ে সাংবাদিকদের জানান, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন ও মাটি কেটে নেয়ার ব্যবস্থা নিবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close