বিদেশের খবর

হ্যারি ও মেগান রাজকীয় উপাধি ব্যবহার করবেন না!

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: সাসেক্সের ডিউক প্রিন্স হ্যারি ও ডাচেস মেগান মার্কেল রাজপরিবারের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়ে কানাডায় চলে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ার পর ব্রিটিশ রাজপরিবার এক সংকট দেখা দেয়। এ সংকটের মধ্যেও প্রিন্স হ্যারি ও মেগানের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন ব্রিটেনের রানী এলিজাবেথ। এদিকে, বাকিংহাম প্যালেস ঘোষণা করেছে, হ্যারি এবং মেগান আর এইচআরএইচ উপাধি ব্যবহার করবেন না এবং রাজকীয় দায়িত্বের জন্য পাবলিক তহবিলও পাবেন না। এ দম্পতি আর রানীর কোনো প্রতিনিধিত্বও করবেন না।
গত ৮ ডিসেম্বর হ্যারি এবং মেগান ঘোষণা করেন যে, তারা রাজপরিবারের দায়িত্ব থেকে অবসর নিতে চান। একই সঙ্গে তারা যুক্তরাজ্য এবং উত্তর আমেরিকায় তাদের সময় ভাগাভাগি করে থাকতে চান। তাছাড়া আর্থিকভাবেও স্বাধীন হতে চান, যাতে রাজকোষের অর্থের ওপর তাদের নির্ভর করতে না হয়। এরপর থেকে ব্রিটিশ রাজপরিবার এক অভূতপূর্ব সংকটে পড়ে।
ডিউক ও ডাচেস দম্পতি জানিয়েছেন, তারা ফ্রোগমোর কটেজের পুনর্র্নিমাণের জন্য করদাতাদের ২.৪ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধের পরিকল্পনা করেছেন, যা তাদের ইউকে পরিবারের আবাসস্থল থাকবে। এদিকে প্রাসাদ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, চলতি বছরের বসন্তে এই ব্যবস্থাটি কার্যকর করা হবে। সোমবার এ দম্পতির ভবিষ্যতের ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করার পরে এই বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। চলতি মাসে তারা ঘোষণা করেছিলেন সিনিয়র রয়্যাল হিসাবে ‘পিছিয়ে’ যেতে চান।
প্রিন্স চার্লস ও প্রিন্সেস ডায়ানার ছোট ছেলে হ্যারি (৩৫) ও মেগান’র (৩৮) দেখা হয়েছিল ২০১৬ সালে। দীর্ঘ সময় প্রেম করার পর ২০১৮ সালের মে মাসে উইন্সরের সেন্ট জর্জ চ্যাপেলে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে বিয়ে করেন তারা। গত বছরের মে মাসের আর্চি হ্যারিসন মাউন্টব্যাটেনের জন্ম দেন মেগান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close