স্থানীয় খবর

শেরপুরে ওয়ারিশ সুত্রে প্রাপ্ত জমি বে-দখল করার চেষ্টার অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন 

Spread the love

ষ্টাফ রির্পোটার: বগুড়ার শেরপুরে ওয়ারিশ সুত্রে প্রাপ্ত জমি দখল বুঝে না দেয়ায় আদালতে মামলার পর আদালত কর্তৃক দখল বুঝে দেয়ার পর সেই জমি আবারো বেদখল দিতে মরিয়া হয়ে পরেছে শেরপুর উপজেলার বিশালপুর ইউনিয়নের কচুয়াপাড়া গ্রামের বাবলু সরকার সহ তার আত্মীয়রা।
সোমবার ২৭ জানুয়ারি বিকাল ৪ টায় শেরপুর প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে শেরপুরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো: জাহেদুর রহমান খান লিখিত বক্তব্যে বলেন, শেরপুর উপজেলার বিশালপুর ইউনিয়নের কচুয়াপাড়া গ্রামের মৃত আয়েন উদ্দিন সরকারের কন্যা খিরিমন বিবি পৈতৃক সুত্রে ১৮.৭৬ একর জমির মালিক হন। খিরিমন বিবির মৃত্যুর পর খিরিমন বিবির ওয়ারিশগন (৩পুত্র ২ কন্যা) ওই জমিতে চাষাবাদ করতে গেলে মৃত খিরিমনের আত্মীয় বাবলু সরকার, শাহিন সরকার, সাজ্জাদ সরকার, মিন্টু সরকার, জিকু সরকার, পরছানা সরকার, হারুনার রশিদ, সাইফুল ইসলাম ও গোলাম ফারুক সহ অন্যান্য আত্মীয়রা মিলে জমির বেদখল দেন। পরে খিরিমনের পুত্র আব্দুল গফুর বাদী হয়ে ১৮.৭৬ একর জমির মালিকানা ও দখল নেয়ার জন্য মামলা করেন। যার নং ১৩০/৯৯। দেওয়ানী আদালতের মাধ্যমে ৭১ নং বিবাদীর সঙ্গে সোলেহযুক্ত হয়ে ডিগ্রী প্রাপ্ত হয় এবং দখলী পরওয়ানা ডিগ্রী জারি ৫/২০০৮ মোকদ্দমার মাধ্যমে ২৮-০১-২০০৮ তারিখে কোর্ট হতে দখল বুঝে পায়। দখল করা অবস্থায় মামলার বিবাদিগণ ২৩/২০০৮ মামলার আরজীর ৪নং তফশীল বিবাদী সাইফুল ইসলাম আপত্তি প্রদান করলে তা গ্রহণযোগ্য না হয়ে প্রার্থকের ডিগ্রী বহাল রাখে এবং ২৪-০৯-২০০৮ তারিখে সন্তোষজনকভাবে মামলাটি নিষ্পত্তি হওয়ায় বিবাদগীগণ উহাতে উচ্চ আদালত মাননীয় হাইকোর্ট এর আপিল বিভাগে আপিল করে। যার নং ১১০৫/২০০৯। কিন্ত মাননীয় হাইকোর্ট আপিল বিভাগ নিন্ম আদালতের রায় বহাল রাখেন। পুনরায় বাদী গন সুপ্রিম কোর্টে লিভ-টু-আপিল করেন। আপিল নং ২১০৫/২০১০। মাননীয় সুপ্রিমকোর্ট নিন্ম আদালতের রায়, মাননীয় হাইকোর্টের রায় বিচার বিশ্লেষন করে মোকদ্দমাটি ২৪ শে মে ২০১৫ সালে খারিজ করে হাইকোর্টের রায় বহাল রাখেন।
এরপরেও বিবাদিরা আমাদের প্রাপ্ত জমির বর্গাদারদের নানাভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসছে। এমনকি তারা জমি জোর করে আবারো দখল করবে মর্মে নানা হুমকি ধামকী অব্যাহত রেখেছে। তিনি লিখিত বক্তেব্য আরো বলেন, জমিগুলো বেদখ দেয়ার নানা অপচেষ্টা করলে আমরা স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের নিকট অভিযোগ দাখিল করি। সে সময় পুলিশ দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করলে বিবাদীরা কিছুদিন চুপ করে থেকে আবারো নানা ধরনের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত আছে। তাই আমরা আজকের সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে প্রসাশনের নিকট প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানা্িচ্ছ। যেন বিবাদীরা আমাদের জমি বেদখল দিতে না পারে এবং আইনশৃংলার অবনতি ঘটাতে না পারে। সাংবাদিক সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন গোলাম কিবরিয়া, সাজু খান, মাহিনুর রহমান প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close