বিনোদন

শুরু হচ্ছে মিস আর্থ বাংলাদেশ

Spread the love

বিনোদন ডেস্ক: বাংলাদেশে প্রথম বারের মতো আয়োজন করা যাচ্ছে মিস আর্থ বাংলাদেশ। এ প্লাটফর্ম থেকে একজন নির্বাচিত হয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা নির্বাচিত সুন্দরীদের সাথে ‘মিস আর্থ’র মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে অংশ নেবেন।
এটি হচ্ছে স্বনামধন্য এই সুন্দরী প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের অংশগ্রহণ। নিয়ম অনুযায়ী, ১৮ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে অবিবাহিত কোনো তরুণী এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন। নানা বিচার প্রক্রিয়া শেষে সেরা বিজয়ীকে আগামী সেপ্টেম্বর মাসে ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলায় পাঠানো হবে। সেখানে গ্রুমিং সেশনে অংশগ্রহণ শেষে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন।
এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে সোমবার রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মিস আর্থ বাংলাদেশের ন্যাশনাল ডিরেক্ট নায়লা বারী। তিনি জানান, মিস আর্থ একটি আন্তর্জাতিক মানের সুন্দরী প্রতিযোগিতা। এখানে প্রতিপাদ্য হলো ‘ইবধঁঃু ভড়ৎ ধ পধঁংব’।
মিস আর্থের উদ্দেশ্য হচ্ছে আর্থ আইকন দিয়ে পৃথিবীর প্রকৃতি, পরিবেশ ও আবহাওয়া রক্ষার সচেতনতা গড়ে তোলা এবং বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণে উৎসাহিত করা। এই প্রতিযোগিতাটি জাতিসংঘের ‘এনভায়রনমেন্ট প্রোগ্রাম’র সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয়।
মিস আর্থ ২০১৯ প্রতিযোগিতায় ৯০টি দেশের সুন্দরীরা অংশ নিয়েছিলেন। বর্তমানে সুন্দরীরা তাদের নিজ দেশে ও বিশ্বের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার সাথে যুক্ত হয়ে প্রকৃতি রক্ষায় বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগে নিজেদের যুক্ত করে অবদান রাখছেন।
আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে মিস আর্থ বাংলাদেশের নিবন্ধন। এটি চলবে ফেব্রুয়ারি জুড়ে। নিবন্ধনের জন্য (িি.িসরংংবৎঃযনধহমষধফবংয.পড়স)- এই ঠিকানায় লগইন করতে হবে। নিবন্ধন শেষে জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে প্রাথমিক বাছাই কার্যক্রম চলবে। মার্চ ও এপ্রিল মাসে বাছাই শেষে সারাদেশ থেকে সেমিফাইনালের জন্য ২১ জনকে নির্বাচিত করা হবে।
নির্বাচিতদের মে মাসে ঢাকায় রেখে গ্রুমিং শেষে বাংলাদেশের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে দেয়া হবে। এছাড়া এ প্রতিযোগিতায় সঙ্গে থাকবে পরিবেশ রক্ষা বিষয়ক চলচ্চিত্র তৈরির প্রতিযোগিতা।
প্রসঙ্গত, অন্যান্য সুন্দরী প্রতিযোগিতায় মূল কথা থাকে সুশ্রী ও সপ্রতিভ মুখ এবং বুদ্ধিমত্তা। কিন্তু মিস আর্থ প্রতিযোগিতায় তিনিই অনন্য বিবেচিত হবেন যিনি ওই গুণগুলোর পাশাপাশি প্রকৃতিকে রক্ষা নিয়ে ভাবেন এবং এ বিষয়ে কাজ করতে চান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close