দেশের খবর

চট্টগ্রামে মেয়র পদে রেজাউল তাপসের আসনে শফিউল

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে এবারে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন না বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। তাঁর বদলে প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠেয় এ নির্বাচনে নৌকার মাঝি করা হয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম রেজাউল করিম চৌধুরীকে। শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ড ও স্থানীয় সরকার নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের এক যৌথ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত এ সভায় পাঁচটি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের মনোনয়নও চূড়ান্ত করা হয়।

সভা শেষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের জানান, ঢাকা-১০ শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বাগেরহাট-১ আমিরুল আলম মিলন, যশোর-৬ শাহীন চাকলাদার, বগুড়া-১ সাইদারা মান্নান, গাইবান্ধা-৩ উম্মে কুলসুম স্মৃৃতিকে মনোনীত করেছে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড। এই আসনগুলোর উপনির্বাচনে এঁরা নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়বেন।
মনোনয়ন বোর্ডের সভার সূত্রগুলো জানিয়েছে, কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন করতে না পারা এবং নানা কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে বিতর্কিত হয়ে পড়ায় চসিকে মনোনয়ন পাননি বর্তমান মেয়র নাছির। অন্যদিকে সাধারণ মানুষ ও দলীয় নেতাকর্মীদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা থাকার কারণে মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা রেজাউল করিম চৌধুরীকে মনোনীত করেন।
সূত্র মতে, মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে আ জ ম নাছির উন্নয়নমূলক কাজের চেয়ে বিতর্কিত কাজ করেছেন বেশি। তিনি চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মেয়র—দুটি দায়িত্ব একসঙ্গে পালন করতে গিয়ে দলের মধ্যে তীব্র কোন্দল সৃষ্টি করেছেন। ছাত্রলীগের এক নেতা হত্যাকাণ্ডে তাঁর অনুসারীরা প্রত্যক্ষভাবে জড়িত বলে দলের মধ্যে অভিযোগ আছে। বহুবার তাঁর অনুসারীদের সঙ্গে অন্যদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।
চট্টগ্রাম মহানগরীর জলাবদ্ধতা দূর করার ক্ষেত্রে মেয়র নাছির ব্যর্থ হয়েছেন বলে মনে করে আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী পর্যায়। এ ছাড়া সিটি করপোরেশন এলাকার রাস্তাঘাটের বেহাল নিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাও নাছিরের ওপর অসন্তুষ্ট ছিলেন।
অন্যদিকে রেজাউল করিম চৌধুরীর পরিচ্ছন্ন ভাবমূর্তি ও দলীয় নেতাকর্মীদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে বলে মনে করে দলটির নীতিনির্ধারণী পর্যায়। রেজাউল করিম একসময় চট্টগ্রামের প্রয়াত মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ ছিলেন। যদিও পরবর্তীতে মহিউদ্দিন চৌধুরীর সঙ্গে তাঁর কিছুটা দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছিল। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হওয়ার আগে তিনি সেখানকার সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। তিনি চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি।
জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড এবং সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মনোনয়ন বোর্ডের মাননীয় সদস্যরা মনে করেছেন চসিকে প্রার্থী পরিবর্তন দরকার। তাঁরা মনে করেন, পুরনো আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল করিম চৌধুরীর পরিচ্ছন্ন ভাবমূর্তি রয়েছে। সাধারণ মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা থাকার কারণে তাঁকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।’

জাতীয় সংসদের পাঁচটি আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে চারটিতেই পুরনো নেতাদের মূল্যায়ন করেছে আওয়ামী লীগ। কেবল রাজধানী ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ ধানমণ্ডি, কলাবাগান, হাজারীবাগ এলাকা নিয়ে গঠিত ঢাকা-১০ আসনে ব্যবসায়ী নেতা শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। বাগেরহাট-১ আসনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বর্তমানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য আমিরুল ইসলাম মিলনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। যশোর-৬ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার। দীর্ঘদিনের প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা শাহীন চাকলাদার যশোর উপজেলা পরিষদেরও চেয়ারম্যান। গাইবান্ধা-৩ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া উম্মে কুলসুম স্মৃতি বর্তমানে কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক। আর বগুড়া-১ আসনে মনোনয়ন পাওয়া সাইদারা মান্নান প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মান্নানের স্ত্রী। তিনিও দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় আওয়ামী লীগের সঙ্গে যুক্ত আছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close