দেশের খবর

খালেদা জিয়ার প্যারোল নিয়ে বিতর্কে ফখরুল-কাদের

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: দুর্নীতি মামলায় কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পেরোলে মুক্তি নিয়ে এখন রাজনৈতিক অঙ্গনে বিতর্ক চলছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তাকে ফোন করে খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির জন্য অনুরোধ করেছেন।
তবে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যকে প্রত্যাখ্যান করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রকাশ্যে বলেছেন, প্যারোল নিয়ে আমরা কোনো কথা বলিনি। আমাদের দল থেকেও কেউ বলেনি।
ফখরুলের এমন বক্তব্যের পর ওবাদুল কাদের জোর দিয়ে বলেছেন, তিনি (মির্জা ফখরুল) যে আমার সঙ্গে কথা বলেছেন, তা অবিশ্বাস করার মতো কিছু নাই। আমার কাছে ফোন রেকর্ড রয়েছে।
দেশের অন্যতম প্রধান দুই দলের দুই শীর্ষ পর্যায়ের নেতার এমন বক্তব্যে রাজনৈতিক অঙ্গনে আলোচনা ঝড় উঠেছে। কে সত্য বলছেন, আর কে সত্য বলছেন না তা নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে।
উল্লেখ্য, দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুই বছর ধরে কারাবন্দী রয়েছে। আগে থেকেই খালেদা জিয়া অসুস্থ ছিলেন। তবে কারা অভ্যন্তরে ঠিকমতো চিকিৎসা না পাওয়ায় তার অসুস্থতা বহুগুণ বেড়ে গেছে বলে দলটির পক্ষ থেকে দাবি করে আসা হচ্ছে। কারাগারের বাইরে এসে তিনি যেন উন্নত চিকিৎসা নিতে পারেন এজন্য দলটির পক্ষ থেকে তার জামিনও চাওয়া হয়েছে বার বার। এরই পরিপ্রেক্ষিতে উচ্চ আদালত বিএনপি চেয়ারপারসনকে বঙ্গবন্ধু হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দিতে নির্দেশ দেন।

এর মধ্যেই গত ১১ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বোন সেলিমা ইসলামসহ তার পরিবারের সদস্যরা। কারাগারে দুই বছর অতিক্রান্ত হওয়ার পর বিএনপি চেয়ারম্যানের প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি প্রথম আলোচনা আসে। ওইদিন সেলিমা ইসলাম জানান, খালেদা জিয়ার উঠে দাঁড়াতে পারছেন না। উঠে ওয়াশরুমেও যেতে পারেন না।
খালেদা জিয়াকে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে না পাঠানো হলে তার যে কি অবস্থা হবে তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন বোন সেলিমা ইসলাম। এই বক্তব্যের পর থেকেই খালেদার প্যারেলো মুক্তির বিষয় নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।
দুই শীর্ষ রাজনৈতিক দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতার এ ধরণের মন্তব্যে সাধারণ মানুষের মনে নানা জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। যেহেতু কাদের বলেছেন তার কাছে কথোপোথনের কল রেকর্ড রয়েছে তাই সবাই মনে করছেন ফখরুলের সঙ্গে তার কথা হয়েছে। আবার ফখরুলের দাবি প্যারোল নিয়ে তাদের কথা হয়নি। তাহলে কি অন্য বিষয় নিয়ে তাদের কথা হয়েছে?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close