স্বাস্থ্য কথা

গোলাপের পানি ব্যবহারে ত্বকের ৫ উপকারিতা

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: ত্বকের সৌন্দর্যে গোলাপের পানি ব্যবহারের কোনো জুড়ি নেই। এটি রুক্ষ্ম শুষ্ক ও তৈলাক্ত সব রকমের ত্বকের জন্যই উপকারি। ফেস প্যাক, স্ক্রাব ও স্কিন টোনার সব কিছুর সঙ্গে গোলাপের পানি মিশিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে-
১. পিএইচ লেবেলে ভারসাম্য বজায় রাখে
ত্বকের পরিচর্যা করার সময় পিইচ লেবেলের দিকে বিশেষ ধ্যান দিতে ভুলবেন না, দূষণ ও সূর্যের ইউবি কিরণের জন্য আজ আমাদের ত্বক খুবই ক্ষতি গ্রস্ত, এর জন্য ত্বকের বিভিন্ন রকম সমস্যা দেখা যায়, এক্ষেত্রে গোলাপের পানি পিএইচ লেবেলের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে ও আমাদের ত্বক সতেজ থাকে।
২. এস্ট্রিঞ্জেন্ট
গোলাপ পানি এস্ট্রিঞ্জেন্ট-এর মতো কাজ করে, যার ফলে আপনি যখনি নিজের ত্বকে গোলাপ জলের ব্যবহার করেন তখন তা আপনার ত্বক থেকে ধুলো দূর করতে সাহায্য করে।
৩. এন্টিঅক্সিডেন্ট ভরপুর
গোলাপ পানির মধ্যে প্রচুর পরিমাণে এন্টিঅক্সিডেন্ট থাকে. এই কারণে গোলাপ জল এন্টি-এজিং হিসাবে ব্যবহার করা হয়, এন্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকের কোষ গুলিকে ভেতর থেকে দৃঢ়তা প্রদান করে তা সতেজ রাখে. যাতে করে মুখের ত্বক টানটান থাকে.

৪.স্কিন ও হাইড্রেট
গোপাল পানি ত্বককে ভেতর থেকে হাইড্রেট করে তা সতেজ রাখতে সাহায্য করে. গোলাপ জল খুবই ভালো ময়েশ্চরাইজার. এটি ত্বককে পুষ্টি প্রদান করে. আপনি যদি প্রতিদিন গোলাপ জলের ব্যবহার করেন তাহলে আপনার ত্বক সর্বদা মসৃন থাকবে এবং যৌবন কখনই নষ্ট হবে না.
৫. ফ্রেশ থাকার টোটকা
আপনি কি জানেন, গোলাপ পানি এক মুহূর্তে আপনার মুডকে সতেজ করে দিতে পারে. আসলে,আপনি যখনই মুখে গোলাপজল ব্যবহার করেন, তখনি এটির সুন্দর গন্ধ আপনার মন সতেজ করে দেয়, যার ফলে স্ট্রেস আপনার আশেপাশে ঘেঁষতে পারে না।
যেভাবে গোলাপ জলের ব্যবহার করবেন
মুখ ধোয়ার পরে, তুলোয় গোলাপ জল নিয়ে মুখের নিচের থেকে ওপর দিকে আলতো করে গোলাপ জল লাগান. আপনি রাতে শোয়ার আগে এর ব্যবহার করতে পারেন। (সংগৃহিত)

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close