বিনোদন

কাঁদলেন শ্রীলেখা

Spread the love

শেরপুর ডেস্ক: কুকুরদের প্রতি অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রের ভালোবাসা অনেক পুরনো। এবার করোনায় যখন জাতীয় লকডাউনে গোটা ভারত এমন সময় রাস্তায় নেমে গেলেন তিনি কুকুরদের খাওয়াতে। সেজন্য তাকে চরমভাবে অপমানও করা হচ্ছে। সম্প্রতি এক ভিডিও প্রকাশ করে কাঁদতে কাঁদতে এ তথ্য জানান তিনি।
শ্রীলেখা জানান, লকডাউনের সময় কখনো ম্যাগি খেয়ে আবার কখনো সকালে না খেয়ে, রাস্তার কুকুরদের খাওয়াচ্ছেন টলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী। তার জেরেই অপদস্ত হতে হচ্ছে তাকে। এমনই অভিযোগ করলেন এই সুন্দরী অভিনেত্রী।
সম্প্রতি একটি ভিডিওতে শ্রীলেখাকে বলতে শোনা যায়, বর্তমানে বড়লোকদের বস্তিতে থাকেন তিনি। সেখানকার মানুষের অর্থই রয়েছে কিন্তু মন বলে কিছু নেই বলে মন্তব্য করেন শ্রীলেখা।
পাশাপাশি তিনি আরও অভিযোগ করেন, বর্তমানে যে সোসাইটিতে তিনি রয়েছেন, সেখানকার মানুষ বারবার অপমান করছেন তাকে। একা মহিলা থাকেন বলেও কথা শুনতে হয় তাকে। তারা কীভাবে এতটা সাহস পান তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন শ্রীলেখা।
পাশাপাশি শ্রীলেখা আরও বলেন, সোসাইটির যে নিরাপত্তাী রয়েছেন, তাকে বা তাদের চা থেকে লেবু জল, সবকিছুর ব্যবস্থা করছেন তিনি। কিন্তু সোসাইটির মানুষ এতটা অমানবিক যে ওই নিরাপত্তারীদের কথা কেউ একবারের জন্যও ভেবে দেখেন না।
এসবের পাশপাশি বেশ কয়েকজনের সাংসদের উপরও েেপ শ্রীলেখা বলেন, ‘বর্তমানে একমুঠো চালের জন্য লড়াই করতে হচ্ছে অনেক মানুষকে। কিন্তু জনপ্রতিনিধি হয়েও কেউ কেউ মানুষের কথা ভাবছেন না। মুখে মাস্ক পরে রূপচর্চা করছেন তারা। কখনও কেউ আবার রান্নার ভিডিও শেয়ার করছেন। দয়া করে এসব করবেন না এখন। নিজেদের রান্নার ছবি নিজেদের কাছে রাখুন কারণ অনেক মানুষের এখন খাবার জোগাড় করতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে।’
এসবের পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, এরপরও কেউ যদি রাস্তার কুকুরদের খাওয়ানো নিয়ে তার সঙ্গে ঝামেলা করেন, তাহলে তাকে ছেড়ে দেবেন না তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close