বিদেশের খবর

করোনায় গোপনে চীনে পরমাণু পরীক্ষা চালানোর অভিযোগ

Spread the love

শেরপুরডেস্ক: করোনা আতঙ্কে পুরো বিশ্ব। কিন্তু এই ক্রান্তিকালে চীন গোপনে পারমাণবিক পরীক্ষা চালিয়েছে বলে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। চীনের লুপ নুর পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্রের পরিপার্শ্বগত পরিবর্তন বিশ্লেষণ করে এমন ধারণা করছে পেন্টাগন।
অভিযোগ করে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টে দাবি করা হয়েছে, ২০১৯ সালে জিংঝিয়াং প্রদেশের লুপ নুর লেকের মাটির নিচে অনেকগুলি কম মাত্রার পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা করেছে চীন। জিরো ইয়েল্ড নামে পরিচিত কম মাত্রার এই পরমাণু বিস্ফোরণে বেশি শব্দ হয় না। তৈরি হয় না চেন রিঅ্যাকশনও। তাই সবার আড়ালে এই পরীক্ষা চালালে বিশ্বজুড়ে হইচই হওয়ার সম্ভাবনাও নেই। তাই এই পথ বেছে নিয়ে তারা। তবে কী কারণে এই ধরনের পরীক্ষা তারা করল সেই বিষয়ে কাউকে কিছু জানায়নি।
এদিকে পারমাণবিক পরীক্ষার কথা অস্বীকার করেছে চীন। চীনের পক্ষ থেকে বলা হয়, আমেরিকা অযথা মিথ্যে কথা বলছে। আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলির নিষেধাজ্ঞা মেনে পারমাণবিক পরীক্ষা বন্ধ রেখেছে চীন। সবসময় দায়িত্ববানের মতো আচরণ করছে। তা সত্ত্বেও কোনো তথ্য ছাড়া উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যে অভিযোগ করছে আমেরিকা।
গত বছর মে মাসে রাশিয়ার বিরুদ্ধে একই ধরনের অভিযোগ আনে মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা। তবে সেই অভিযোগ প্রমাণ করা যায়নি। মার্কিন আমলারাও ট্রাম্প প্রশাসনকে আনুষ্ঠানিকভাবে সিটিবিটি বাতিল করার আহ্বান জানাচ্ছেন। তাতে করে যুক্তরাষ্ট্র নিজেদের পারমাণবিক পরীক্ষা চালাতে পারবে।
রিপাবলিকান সিনেটর টম কটোন টুইটারে লিখেছেন, বেইজিং তাদের পারমাণবিক অস্ত্র আধুনিকায়ন করছে আর যুক্তরাষ্ট্র একপাক্ষিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তির দিয়ে হাত আটকে রেখেছে। চীন প্রমাণ করেছে তারা আমাদের সঙ্গে সততার সঙ্গে কাজ করতে পারবে না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close