বিনোদন

লকডাউনে আর্থিক সমস্যায় ‘নাগিন’ অভিনেত্রী সায়ন্তনী

Spread the love

আজকের শেরপুর ডেস্ক: লকডাউনেক কারণে শ্যুটিং বন্ধ। এই পরিস্থিতিতে অর্থনৈতিক সঙ্কটের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন জনপ্রিয় টেলি অভিনেত্রী সায়ন্তনী ঘোষ। নাগিন টাইটেলে আইটেম গানে পরিচিতি বেশ ছড়িয়ে পড়ে অভিনেত্রী সায়ন্তনী ঘোষের। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নিজের অর্থনৈতিক সমস্যা নিয়ে মুখ খুলেছেন তিনি।
টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সায়ন্তনী বলেন, এ এক অদ্ভুত সমস্যা। যে কাজগুলির জন্য আমার পারিশ্রমিক পাওনা রয়েছে, তাঁরা কেউ টাকা দিতে অস্বীকার করছেন, এমনটা নয়। অথচ, এই পরিস্থতিতে তাঁরা টাকা দেবেনই বা কীভাবে? সব অফিসই তো বন্ধ। এই পরিস্থিতিতে আমরা অনেকেই সমস্যার মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। অনেকগুলি কাজের জন্য আমার পারিশ্রমিক আটকে রয়েছে।
সায়ন্তনী আরো বলেন, আমার বাড়ি ও গাড়ির ইএমআই আটকে রয়েছে। আপাতত না হয় ইএমআই ২-৩ মাসের জন্য বন্ধ রাখলাম। সরকারি তরফে ইএমআই এর ক্ষেত্রে এমনই একটি নির্দেশিকা রয়েছে। কিন্তু আমাকে আমার সংসারও তো চালাতে হবে। এই পরিস্থিতিতে যাঁর দৈনিক রোজগেরে কর্মী, কিংবা যাঁরা সবে কাজ শুরু করেছেন ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁদের জন্য চিন্তা হচ্ছে। তাঁরা কীভাবে চালাবেন। এই সময়টা প্রত্যেকটা মানুষের কর্মক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হয়েছে।
সায়ন্তনী ঘোষ বলেন, আমাদের দেশের শ্রমিকের সংখ্যাই বেশি। তাই এক্ষেত্রে নানান কর আমাদের উপর দিয়েই তোলা হয়। আর বহুদিন ধরে আমরা বাড়িতেই বসে রয়েছে। এবার হয়ত নতুন করে আবারো কাজকর্ম শুরু করার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। তবে কাগজ কলমে কাজের ক্ষেত্রে তাও ঠিক আছে। কিন্তু যাঁরা ফিল্ডে নেমে কাজ করেন, সেটা কীভাবে এখনই সম্ভব। এখানে প্রত্যেকের নিরাপত্তার বিষয়টি জড়িত।
তিনি বলেন, যদি শ্যুটিং শুরু হয়, সেখানে অনেক লোকজন থাকবেন, তখন কীভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকবে? এমনও বলা হচ্ছে, অভিনেতারা শ্যুটে এলে আর বাড়ি ফিরবেন না, আপাতত সেখানেই থাকবেন। তবে এ ক্ষেত্রে আউটডোর শ্যুটিং ঝুঁকি থাকছেই। আরো অনেক বিষয় রয়েছে। তবে বস্তবে আবার যে কবে সবকিছু ঠিকঠাক হবে, কিছুই বুঝতে পারছি না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close